শিরোনাম
জরুরি পণ্য পরিবহন ছাড়া ভারতের সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধের প্রস্তাব করোনায় বেসামাল ভারত লাশের স্তুপ ফুরাচ্ছে না শ্মশানে সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মিতে করোনায় মৃত্যুর হার কম: গবেষণায় দাবি বিদেশি গণমাধ্যম ঠেকাতে নজরদারি ব্যবস্থা ব্যবহার করেছে চীন : রিপোর্ট বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ১৪ কোটি পাঁচ লাখ বাংলাদেশিদের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ায় আবারও ভিসা নিষেধাজ্ঞা মুভমেন্ট পাসের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৩ লাখ ১০ হাজার জন স্বাগত পবিত্র রমজান,আত্মশুদ্ধির সর্বোত্তম উপায় চাঁদপুর স্থাপন হচ্ছে তিন শয্যাবিশিষ্ট আইসিইউ শরীরের ছাঁকনি ‘কিডনি’ পরিষ্কার ও সুস্থ রাখবেন যেভাবে
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন
নুটিশ :
Wellcome to our website...

বিদেশি গণমাধ্যম ঠেকাতে নজরদারি ব্যবস্থা ব্যবহার করেছে চীন : রিপোর্ট

রিপোটারের নাম / ১৭৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক :

বিদেশি সাংবাদিকদের গতিবিধি চিহ্নিত করে তাদের কার্যক্রম রুখতে জাতীয় নিরাপত্তা তদন্ত এবং নজরদারি ব্যবস্থা ব্যবহার করেছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি (সিসিপি)। এ ছাড়া তাদের ভয়ভীতি দেখানো এবং মারধরেরও অভিযোগ রয়েছে।

চীনের মানবাধিকার অ্যাক্টিভিস্ট জিয়ানলি ইয়াং এ ব্যাপারে ম্যাগাজিন ন্যাশনাল রিভিউ-তে একটি প্রতিবেদন লেখেন। তিনি বলেন, চীনে বিদেশি সাংবাদিকরা প্রতিবেদন তৈরি করতে গেলে তাদের নজরদারিতে রাখার ইতিহাস দীর্ঘ সময়ের। এমনকি গত বছর করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে যাওয়ার মধ্যেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি।

জিয়ানলি ইয়াং লিখেছেন, চীনে বিদেশি সাংবাদিকদের রিপোর্টিংয়ের বিষয়টি নজরদারিতে রাখার ব্যাপারে সিসিপির দীর্ঘ সময়ের ইতিহাস রয়েছে। এমনকি ২০২০ সালে করোনাভাইরাস ছড়ানোর বছর এবং করোনা মহামারি আকারে দেখা দেওয়ার বছরেও কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি। করোনাভাইরাস বিস্তার পর্যবেক্ষণ ও নজরদারিতে রাখার জন্য রাষ্ট্রীয় নজরদারি ব্যবস্থা ব্যবহার করা হয়। বিদেশি সাংবাদিকদের যারা এ ব্যাপারে প্রতিবেদন প্রকাশের সঙ্গে জড়িত, তাদেরকেও ওই নজরদারি ব্যবস্থায় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল।

অভিযোগ উঠেছে, করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে নেওয়া প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা, ভয়ভীতি ও ভিসাসংক্রান্ত প্রতিবন্ধকতাকে ব্যবহার করেছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি। এসব কারণে চীনে ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় দ্রুত অবনতি’ ঘটছে। এমনটাই মনে করছে চীনে কর্মরত বিদেশি সাংবাদিকদের সংগঠন ফরেন করেসপনডেন্টস ক্লাব অব চায়না (এফসিসিসি)। এফসিসিসি জানিয়েছে, গত তিন বছরে চীনে বিদেশি সাংবাদিকদের কাজের পরিবেশের কোনো দিক থেকেই উন্নতি হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

মাসিক তথ্য

ব্রেকিং নিউজ
Bengali BN English EN
ব্রেকিং নিউজ
Bengali BN English EN